৭ মাত্রার ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত জাপানের হোক্কাইদো

Print Friendly and PDF

জা পা ন

রাহমান মনি

জাপানের উত্তরাঞ্চলীয় শহর হোক্কাইদো দ্বীপে জাপানিজ স্কেলে ৭ মাত্রার (৬.৭ ম্যাগনিচিউড) ভূমিকম্পে জনজীবন বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছে। যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে, ২৯ লাখ ৫ হাজার লোক বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে অন্ধকারে নিমজ্জিত রয়েছেন।
৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার ৩.০৭-এর সময় ঘুমন্ত শহরে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। ভূমিকম্পটির উৎপত্তির স্থল ছিল হোক্কাইদোর দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল ইবুরি জেলার পাহাড়িয়া অঞ্চল আতসুমা এলাকার ৩৭  কিলোমিটার গভীরে।
সর্বশেষ খবর পাওয়া সূত্রমতে ভূমিকম্পে এ পর্যন্ত ১৬ জন নিহত, ২৬ জন নিখোঁজ এবং ২৯৫ জন আহত হবার খবর নিশ্চিত করা হয়েছে।
এনএইচকে সূত্রমতে নিখোঁজ ব্যক্তিদের প্রায় সবাই আতসুমা এলাকার বাসিন্দা এবং ভূমিকম্পে দেবে/ভূমিধসে নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। ধারণা করা হচ্ছে তাদের কেউ আর বেঁচে নেই। ৫০০ লোক জরুরি আশ্রয় কেন্দ্রে স্থান নিয়েছেন বলে আতসুমা শহরের মেয়র শোইচিরো মিয়াসাকা সূত্রে জানা যায়। তিনি বলেন, ২ হাজার লোককে জরুরি খাবার সরবরাহ করা হচ্ছে নিয়মিত। এখনো পর্যন্ত বাহিরের কাছে কোনো জরুরি সহযোগিতা চাওয়া হয়নি।
প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে তার সব কর্মসূচি বাতিল ঘোষণা করেছেন। তিনি একটি জরুরি টাস্কফোর্স গঠন করে ২৫ হাজার সেলফ ডিফেন্স সদস্য ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলোতে পাঠিয়েছেন। এই টাস্কফোর্স উদ্ধার এবং অনুসন্ধানকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গুরুত্ব দিয়ে কাজ শুরু করে দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর অফিস সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব ইয়োশিহিদে সুগা বিভিন্ন সময় সাংবাদিকদের সর্বশেষ পরিস্থিতি জানাচ্ছেন।
উদ্ধারকর্মীরা প্রশিক্ষিত কুকুর ও বুলডেজার দিয়ে কাদা ও ধ্বংসস্তূপের মধ্যে আটকে থাকাদের উদ্ধার করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। আকাশপথ থেকেও অনুসন্ধান চালানো হচ্ছে দুর্গম এলাকাগুলোতে। অনেক ভবন হেলে পড়া এবং রাস্তাঘাট ফাটল ধরায় অনুসন্ধান কাজে উদ্ধারকর্মীদের হিমশিম খেতে হচ্ছে। বিদ্যুৎ না থাকায় আরও বেশি বেগ পেতে হচ্ছে উদ্ধারকর্মীদের। থেমে থেমে আফটারশক হওয়াতে উদ্ধার কাজে বিলম্ব হচ্ছে বলে উদ্ধারকর্মীরা জানান।
হোক্কাইদোর রাজধানী সাপ্পোরোতে বিদ্যুৎ সরবরাহ দেয়া শুরু করা হয়েছে। শুক্রবার পর্যন্ত বিদ্যুৎকর্মীরা দিনরাত পরিশ্রম করে প্রায় ১০ লাখ সংযোগ দিতে সক্ষম হয়েছেন। গ্রাহকদের বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে, যাতে করে সর্বাধিকসংখ্যক গ্রাহককে স্বল্প সময়ের মধ্যে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা যায়।
হোক্কাইদোতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের সাময়িক অসুবিধা হলেও ভালো আছেন। বাংলাদেশ দূতাবাস তাদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছে। যেকোনো সহযোগিতায় দূতাবাস সদা প্রস্তুত রয়েছে। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করার জন্য একটি হটলাইন খোলা হয়েছে। যার নাম্বার হচ্ছে ৮১৮০৪০৬৫৬৬০১।
চলতি গ্রীষ্মে ব্যাপক বৃষ্টিপাত, ভূমিধস, বন্যা ও অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে যাওয়া দাবদাহে শতাধিক লোক মারা যাওয়া এবং সপ্তাহ দুয়েক পর শক্তিশালী টাইফুন জেবির কবলে পড়ে বহু হতাহতের মাত্র দুইদিনের মাথায় ফের বড় ধরনের ভূমিকম্পের কবলে পড়তে হলো জাপানকে।
ছবি : আন্তর্জাল থেকে

সাপ?তাহিক পতিবেদন

 মতামত সমূহ
পিছনে 
 আপনার মতামত লিখুন
English বাংলা
নাম:
ই-মেইল:
মন্তব্য :

Please enter the text shown in the image.