[করপোরেট সাক্ষাৎকার] ‘সরকার ও ব্যবসায়ীরা একসাথে কাজ করলে এসডিজি অর্জন তেমন কঠিন কাজ না’-সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম কমু

Print Friendly and PDF

সিআইপি
গ্রুপ ম্যানেজিং ডিরেক্টর, ওয়েল গ্রুপ

সিআইপি হয়ে আপনার কেমন লাগছে?
সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম কমু সিআইপি :
আসলে আজকে আমি মনে করি একজন ব্যবসায়ীর জন্যে রাষ্ট্র যখন স্বীকৃতি দেয় একজন ব্যবসায়ী তখন আনন্দিত হয়, পুলকিত হয়, তার স্পৃহা বেড়ে যায় এবং কর্মব্যস্ততা আরও বেড়ে যায়। এর সঙ্গে সমাজের এবং রাষ্ট্রের প্রতি দায়বদ্ধতাও বেড়ে যায়। সিআইপি পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে গিয়ে আমি বুঝেছি আমাদের মাননীয় বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল ভাই যে বক্তব্য দিয়েছেন তা একজন মন্ত্রী হিসেবে বক্তব্য ছিল না। মনে হয়েছে তিনি আমাদের ব্যবসায়ীদের একজন অভিভাবক। আজ থেকে ১০ বছর আগে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ ছিল কত? ৩৪/৩৫ শত আর আজকে আমরা বিদ্যুৎ উৎপাদন ১৮ হাজারেরও উপরে। প্রধানমন্ত্রী যদি এই ইনিশিয়েটিভ না নিতেন? গ্যাস শর্ট, আমরা গ্যাস পাবো, গ্যাস পাবো করলাম? কিন্তু প্রধানমন্ত্রী বললেন গ্যাস যখন পাবো তখন দেখা যাবে। আমরা এলএনজি নিয়ে আসব। আজকে আমরা এলএনজি অলরেডি পাচ্ছি।
আপনাদের ব্যবসায়িক গ্রুপ সম্পর্কে জানতে চাই?
সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম কমু :
ব্যবসায়ী হিসেবে আমরা টেক্সটাইল এ আছি। আমরা যখন ফুড বিজনেসে আসি আজ থেকে ১৪ বছর আগে- ওয়েল ফুড। চট্টগ্রাম থেকে শুরু- এখন ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট আছে । আমাদের পণ্য এখন ইউকে, ইউএই, নেপাল, ভুটান এবং কানাডাতে পণ্য এক্সপোর্ট করছি। থাইল্যান্ডেও আমাদের পণ্য পাওয়া যায়। ফুড বিজনেস এক্সপানশনে আমরা যাচ্ছি। ব্যাকওয়ার্ড লিংকেজ থেকে ফরোয়ার্ড লিংকেজ যেমন, তুলা থেকে সুতা- সুতা থেকে কাপড় এবং কাপড় থেকে অ্যাপারেল এই  সব বিজনেস রয়েছে। তারপরে আমাদের প্যাকিং ম্যাটেরিয়াল। আমরা অলমোস্ট নিজেদের  প্যাকেজিং ব্যবহার করি এবং নতুন করে আমরা ফেব্রিক্স এ গেলাম।
আপনাদের তো হোটেল বিজনেসও আছে?
সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম কমু :
জ্বি। চট্টগ্রামে আমরা তিন তারকাবিশিষ্ট একটা হোটেল করেছি। সামনের বছর থেকে আমাদের ফোর স্টার হোটেল আসছে এবং কক্সবাজারে আমরা একটা ফাইভ স্টার হোটেল করার জন্যে ইতোমধ্যে আমরা জায়গা নিয়েছি।
আপনার ভাই চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান। আপনারা পারিবারিকভাবেই ব্যবসা এবং সামাজিক কাজের সঙ্গেই জড়িত?
সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম কমু :
আমাদের বড়ভাই আব্দুস সালাম তিনি ওয়েল গ্রুপের ফাউন্ডার। তিনি আজ থেকে ৯ বছর আগে যখন জননেত্রী শেখ হাসিনার ডাকে সিডিএ তে জয়েন করলেন তখন তিনি আমাদের কোম্পানি থেকে রিজাইন দিয়েছেন সরকারের নিয়ম অনুযায়ী। তিনি রিজাইন দেয়ার পরে আমার মেজো ভাই সৈয়দ নূরুল ইসলাম তিনি আমাদের কোম্পানির এখনকার চেয়ারম্যান অ্যান্ড সিইও। তার নেতৃত্বে এখন আমরা কাজ করছি।
আপনি কোন ক্যাটাগরিতে সিআইপি?
সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম কমু :
আমি পেয়েছি এক্সপোর্টে। আর আমার ভাই চেয়ারম্যান পেয়েছেন ট্রেড অ্যান্ড এক্সপোর্টে। আমরা দুই ভাই এবার একসাথে সিআইপি হয়েছি। বড়ভাই আগেও হয়েছেন এবারও হলেন। আমি প্রথমবারের মতো হলাম।
ব্যবসায়িক পরিকল্পনার দিক থেকে আগামীতে আপনার কী প্ল্যান আছে?
সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম কমু :
আমরা নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে আসা মানুষ। আমি সবসময় মনে করতাম যে, নতুন নতুন জিনিস সৃষ্টি করা যেমন, বাংলাদেশ সবসময়ই সুতা আমদানি করত। সেলাইয়ের সুতা এবং কাপড় বানানোর সুতা বাংলাদেশ আমদানি করত। প্রথম আমি আমার কোম্পানিতে যখন জয়েন করলাম তখন আমি স্বপ্ন দেখলাম, কেন সুতা আমরা আমদানি করবো, সুতা তো এক্সপোর্ট করা যায়? আমি গত চার বছরে মোর দেন ফোর হানড্রেড কন্টেনার সুতা এক্সপোর্ট করেছি টার্কি, শ্রীলঙ্কা ও অন্যান্য দেশে।
আপনারা পারিবারিকভাবে সবাই ব্যবসা করছেন। ডিজিটাল লাইফে পারিবারিক বন্ধন কমে যাচ্ছে। পারিবারিক বন্ধন অটুট রাখতে উৎসাহমূলক কিছু শুনতে চাই?
সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম কমু :
আমি বলব প্রত্যেকের জন্যে একজন লিডার প্রয়োজন। আমার বড়ভাই তিনি আমাদের সবার বড়। আমার বাবার সংসারে যিনি আমাদের দেখাশোনা করিয়ে পড়ালেখা শিখিয়ে আমাদের এই জায়গায় এনেছেন। আমি দেখেছি তার লাইফস্টাইল ছিল সবসময়ই আমাদের চেয়ে নিম্নমানের। এখন তার বয়স ৬৮। তিনি এখনো বাসায় ফেরেন রাত ১২টার পরে।
ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কি ওয়েল গ্রুপ নিয়ে?
সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম কমু :
আমাদের অনেক দূর যেতে হবে। কারণ সাসটেইনঅ্যাবল ডেভেলপমেন্ট গোল এসডিজি যেটা  অ্যাচিভ করতে চাই তাহলে করণীয় কী? এর মধ্যে একটি আছে- আমাদের ভ্যালুয়েশন হতে হবে টুয়েন্টি থ্রি পারসেন্ট। বেসরকারি খাতের বিনিয়োগ নিয়ে যেতে হবে ৩৫ পারসেন্টে। তারপরে ৯ শত বিলিয়ন ইউএস ডলারের ইনভেস্টমেন্ট লাগবে। আমরা যারা ব্যবসায়ী। সরকার এবং আমরা ব্যবসাবান্ধব নীতিতে একসঙ্গে কাজ করবো। ব্যবসাবান্ধব নীতিতে আমরা যদি পরিশ্রমী হই সৎভাবে ব্যবসা করি তাহলে এসডিজি অর্জন তেমন কঠিন কাজ না।

সাপ?তাহিক পতিবেদন

সাক্ষাৎকার
 মতামত সমূহ
পিছনে 
 আপনার মতামত লিখুন
English বাংলা
নাম:
ই-মেইল:
মন্তব্য :

Please enter the text shown in the image.